Home » বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি » প্রযুক্তির খবর » অবশেষে বন্ধের পথে ইয়াহু ম্যাসেঞ্জার
অবশেষে বন্ধের পথে ইয়াহু ম্যাসেঞ্জার
অবশেষে বন্ধের পথে ইয়াহু ম্যাসেঞ্জার

অবশেষে বন্ধের পথে ইয়াহু ম্যাসেঞ্জার

বন্ধ হয়ে যাচ্ছে একসময়ের বহুল জনপ্রিয় ইয়াহু ম্যাসেঞ্জার। আধুনিক সময়ের অ্যাপভিত্তিক ম্যাসেজিং সেবা ও সোশ্যাল মিডিয়ার অভাবনীয় জনপ্রিয়তার সাথে নিজেকে টক্করে মেলে ধরতে না পারায় নিজেদের কার্যক্রম বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কর্তৃপক্ষ। জানা যায়, এ বছরই তাদের শেষ বছর। প্রসঙ্গত ২০১৮ সালের ১৭ জুলাইয়ের পর হতে আর ইয়াহু ম্যাসেঞ্জার ব্যবহার করা যাবে না।

ইয়াহু ম্যাসেঞ্জার সার্ভিসহোল্ডার হতে ব্যবহারকারীদের জন্য ছয় মাস বাড়তি একটি সুযোগ দিতে মনস্ত হচ্ছেন। ১৭ জুলাই এর পর হতে আর কোন নতুন একাউন্ট লগইন করা যাবে না। তবে পরবর্তী ৬ মাস পর্যন্ত পুরনো ব্যবহারকারীদের চ্যাটগুলো সংরক্ষণের জন্য বাড়তি সুযোগ দিবে। কেনা যদি কেউ তার চ্যাট রেকর্ডগুলো নিজের করে ডাউনলোড করে রাখতে চান তার জন্যই এ সুবিধার ব্যবস্থা করা। তবে অ্যাপ ও ওয়েবে ইয়াহু ম্যাসেঞ্জার সেবা বন্ধ হওয়ার আগ পর্যন্ত সকল সেবা স্বাভাবিকভাবেই কাজ করবে। বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর আর লগইনও করা যাবে না।

তবে ম্যাসেঞ্জার সেবা হতে সরে গেলেও সেবা ব্যবহারকারীদের জন্য তারা নতুন ইয়াহু স্কুইরেল নামক সেবা প্রদান করতে আশাবাদী। ইতিমধ্যে তারা ইয়াহু স্কুইরেল নামের এই নতুন যোগাযোগ প্ল্যাটফর্ম নিয়ে কাজ শুরু করেছেন। সেই সাথে তাদের সকল ব্যবহারকারীদের স্কুইরেল ব্যবহার করার জন্য গুরুত্বপূর্ণ পরামর্শ দিচ্ছে ।

শুরুতে ইয়াহু ম্যাঞ্জোরটি দারুন ভাবে গ্রাহকদের কাছে জনপ্রিয়তা লাভ করেছিলেন তাদের চ্যাটরুমে নতুন বন্ধুত্ব বাড়ানোর একটি সু-ব্যবস্থার দরুন। কিন্তু কালক্রমে আধুনিক সময়ে ইন্টারনেট জগতে যোগ হয় ফেসবুক আর ম্যাসেঞ্জার। আর এই সোসাইল মাধ্যমের কাছে এক নিমিশেই জনপিয়তা হারান ইয়াহু ম্যাসেঞ্জার। যার কারনে তাদের শীর্ষ স্থানে থাবা ফেলেন ফেসবুক ও অন্যান্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলো।

সালটা ১৯৯৮। ওই বছরের ৯ মার্চ আত্মপ্রকাশ করেছিল ইয়াহু ম্যাসেঞ্জার। আর এর দৌলতেই সবে মানুষ চ্যাটিং করা শুরু করেছিল। একটা নতুন জগত খুলে গিয়েছিল প্রযুক্তিতে। তবে এবার ২০ বছর পর পুরনো এই ম্যাসেজিং সার্ভিসই বন্ধ হতে চলেছে। গত শুক্রবার এই ঘোষণা দিয়েছে ইয়াহু সংস্থা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: