Home » খেলাধুলা » ক্রিকেট » আফগানিস্তানের সঙ্গে সিরিজ নিয়ে টাইগারদের দুঃশ্চিন্তা!

আফগানিস্তানের সঙ্গে সিরিজ নিয়ে টাইগারদের দুঃশ্চিন্তা!

বিপদের সময় আফগানিস্তানকে পাশে পেয়েছিল বাংলাদেশে ক্রিকেট বোড। যখন বাংরাদেশে ক্রিকেট সিরিজ খেলতে ইংল্যান্ডের নিরাপত্তা নিয়ে অসম্মতি দেখা দিয়েছিল ঠিক তখনি বন্ধুর মতো হাত বাড়িয়ে দিয়েছিল আফগানিস্তান। বাংলাদেশের মাটিতে এসে তারা ক্রিকেট খেলে যায় এবং ইংল্যান্ড দল কে বুঝিয়ে দেয় যে বাংলাদেশে ক্রিকেট খেলা নিরাপদ।তার পরবতিতে ইংলিশরা বাংলাদেশ সফর করে যায়।

কিন্তু এবার সেই আফগানিস্তানের সাথে সিরজ খেলতে ভেন্যুর সমস্যার কথা বলছে। অপরদিকে সেই ২০১৫ সালে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) সঙ্গে সমঝোতা চুক্তি অনুযায়ী উত্তর প্রদেশের গ্রেটার নয়ডা স্পোর্টস কমপ্লেক্স গ্রাউন্ডকে নিজেদের ‘ঘরের মাঠ’ হিসেবে ব্যবহার করে আসছে আফগানিস্তান। বিসিসিআইয়ের অনুমতি সাপেক্ষে দেরাদুন হচ্ছে আফগানদের ‘দ্বিতীয় ঘরের মাঠ’। উত্তরাখন্ডের এ ভেন্যুতেই জুনের প্রথম সপ্তাহে বাংলাদেশের বিপক্ষে একটি সিরিজ আয়োজন করতে যাচ্ছে আফগানিস্তান।

এদিকে দুদিন আগে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান জানিয়েছেন, তাঁরা আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ডকে দেরাদুনের বিকল্প ভেন্যু ঠিক করার কথা বলেছেন। বাংলাদেশ সিরিজটা বেঙ্গালুরু কিংবা কলকাতায় খেলতে বেশি আগ্রহী বলে জানান নাজমুল। আজ বিসিবির ক্রিকেট পরিচালনা প্রধান আকরাম খান জানালেন ভিন্ন কথা।

আকরাম বলছেন, ভেন্যু নিয়ে কোনো জটিলতার কথা তাঁর জানা নেই। নতুন যে বিষয়টি সামনে এসেছে, এ সিরিজ কোন সংস্করণে খেলতে চায়, সেটি নিয়ে কিছুটা দ্বিধায় বাংলাদেশ। আফগানিস্তান বাংলাদেশের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলার প্রস্তাব দিয়েছে। বিসিবি এখনো সিদ্ধান্ত নিতে পারেনি, আফগানদের বিপক্ষে ওয়ানডে নাকি টি-টোয়েন্টি খেলবে।

ফেব্রুয়ারিতে দেশের মাঠে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দুটি টি-টোয়েন্টি খেলেই মার্চে কলম্বোয় বাংলাদেশ নিদাহাস ট্রফি খেলেছে টি-টোয়েন্টি সংস্করণে। আবার জুনের তৃতীয় সপ্তাহে বাংলাদেশকে ওয়েস্ট ইন্ডিজ রওনা দিতে হচ্ছে, যে সফরটা শুরু হবে টেস্ট দিয়ে। আফগানিস্তান কদিন আগে বিশ্বকাপ বাছাই খেলেছে ওয়ানডে সংস্করণে। প্রতিপক্ষ ও নিজেদের সুবিধা-অসুবিধার কথা ভেবেই একটু দ্বিধায় বিসিবি।

তাই আকরাম আজ দুপুরে সংবাদমাধ্যমকে বললেন, ‘যত দূর জানি, ভেন্যু নিয়ে কোনো সমস্যা নেই। আমরা কোন সংস্করণে খেলতে চাই, সেটাই হচ্ছে ব্যাপার। ওরা ওয়ানডে খেলতে চায়। আর আমরা এখনো সিদ্ধান্ত নিইনি। আমরা আমাদের সুবিধা অনুযায়ী খেলতে চাইব।’

সিরিজের সূচি এখনো ঠিক হয়নি। তবে সিরিজটা জুনের প্রথম সপ্তাহে হওয়ার কথা। ওয়ান্ডে কিংবা টি-টুয়েন্টি যে সিরিজই হোক না কেন ক্রিকেট ভক্তরা যে এখন মুখিয়ে আছে বাংলাদেশ এবং আফগানিস্তানের মধ্যকার সিরিজ নিয়ে।প্রিয় তারকাদের খেলা দেখতে তারা যে এখন অধির আগ্রহে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

%d bloggers like this: