Home » স্বাস্থ্য » রূপচর্চা » উপকারী দ্রব্যের অপকারী গুণ!!!
উপকারী দ্রব্যের অপকারী গুণ!!!
উপকারী দ্রব্যের অপকারী গুণ!!!

উপকারী দ্রব্যের অপকারী গুণ!!!

রুপচর্চা নিয়ে কে না ভাবে বলুন। নিত্যদিনের রুপচর্চায় আমরা নিজেদের অজান্তে অনেক কিছুই ব্যবহার করে থাকি। যেমন ধরুন, নিম, হলুদ, চন্দন, ঘৃতকুমারীর মতো আরও অনেক জিনিস। কিন্তু আপনি কি জানে এসব উপাদান ব্যবহারে অজান্তেই আপনি আপনার ত্বকের কতটা ক্ষতি করছেন। তবে চলুন জেনে নেওয়া যাক এসব উপাদান ব্যবহারের ক্ষতিকারক দিকগুলো সম্পর্কে-

১) হলুদঃ
অনেকের ধারণা হলুদ মাখলেই ত্বক হলুদের মতো উজ্জ্বল হয়ে উঠবে। কিন্তু আপনি কি জানেন হলুদ মেখে বাইরে বের হলে ঠিক এর উল্টোটাই ঘটবে। রোদের সংস্পর্শে আসলেই ত্বক পুড়ে কালো হয়ে যাবে। তাই সরাসরি কাঁচা হলুদ বাটা নয়, কাঁচা হলুদের রসটুকু বের করে তা ফুটিয়ে নিতে হবে। এবার শুষ্ক ত্বকের জন্য দুধের সর বা চীনা বাদাম বাটা এবং তৈলাক্ত ত্বকের জন্য মুলতানি মাটি মিশিয়ে ত্বকে লাগাতে হবে।

২) গ্লিসারিনঃ
আমরা সাধারণত শীতকালে গ্লিসারিন ব্যবহার করি। কিন্তু গরমকালেও ত্বক সুরক্ষায় কাজে দেবে গ্লিসারিন। তবে এ জন্য অবশ্যই এক ভাগ গ্লিসারিনের সঙ্গে চার ভাগ পানি মিশিয়ে নিতে হবে।

বিস্তারিত দেখুন ভিডিওতে

৩) ক্যাস্টর ওয়েলঃ
যাদের আই ভ্রু পাতলা তাদের একটা গভীর বিশ্বাস যে, ভ্রু তে ক্যাস্টর ওয়েল লাগালেই বুঝি ঘন হবে ভ্রু। কিন্তু এই ধারণাটি একেবারেই ভুল। অনেক দিনের বাসি ক্যাস্টর ওয়েল যেটা ব্ল্যাক ক্যাস্টর ওয়েল নামে পরিচিত, তা লাগালেই শুধু ঘন হবে ভ্রু। তবে এই ক্যাস্টার ওয়েল সব জায়গায় পাওয়া যাবে না। ক্যাস্টার ওয়েল উৎপাদনের ফ্যাক্টরি ছাড়া আর কোথাও এটি পাওয়া যাবে না।

৪) ঘৃতকুমারী বা অ্যালোভেরাঃ
অনেকেই আছে যারা ত্বক উজ্জ্বল করতে সরাসরি ত্বকে অ্যালোভেরার জেল লাগিয়ে থাকেন। কিন্তু অ্যালোভেরায় একধরনের এনজাইম থাকে, যা ত্বকের জন্য খুব ক্ষতিকর। এ জন্য অ্যালোভেরা সরাসরি না লাগিয়ে ত্বকের সঙ্গে মানায় এমন উপকরণের সঙ্গে লাগাতে হবে।

৫) নিমপাতাঃ
নিমপাতা পুরোপুরি ব্রণের দাগ দূর করতে পারে না। বরং ব্রণ হলে সেই জায়গায় নিমপাতার পেস্ট লাগালে ব্রণ বড় হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা কমে।

৬) তিলের তেলঃ
ত্বকের পোড়া দাগ দূর করতে তিলের তেলের সঙ্গে লেবুর রস মিশিয়ে নিলে তবেই তা কাজে দেবে। তবে কোনো অবস্থাতেই সরাসরি তিলের তেল মুখে লাগাবেন না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: