Home » খেলাধুলা » কাঁদলেন ফুটবলার ইনিয়েস্তা, কাঁদলো সারা বিশ্ব!
কাঁদলেন ফুটবলার ইনিয়েস্তা, কাঁদলো সারা বিশ্ব!
কাঁদলেন ফুটবলার ইনিয়েস্তা, কাঁদলো সারা বিশ্ব!

কাঁদলেন ফুটবলার ইনিয়েস্তা, কাঁদলো সারা বিশ্ব!

কাঁদলেন ফুটবলার ইনিয়েস্তা, কাঁদলো সারা বিশ্ব!

কাঁদলেন ফুটবলার ইনিয়েস্তা, কাঁদলো সারা বিশ্ব!

এবারের মৌসুমে বার্সেলোনা শিবিরের জন্য চ্যাম্পিয়নস লিগ হয়ে উঠেছে দুঃসহ স্মৃতির নাম কারণ তুলনামূলক কম শক্তিশালী রোমার বিপক্ষে বাজেভাবে হেরে বিদায় নিতে হয়েছে কাতালানদেরতার উপর আবার বার্সেলোনা থেকে বিদায় নিতে যাচ্ছেন স্প্যানিশ তারকা ফুটবলার আন্দ্রেস ইনিয়েস্তা।

তাই ইনিয়েস্তার বিদায়ের দিনে এবং শিরোপা নির্ধারণী লড়াইয়ে শনিবার রাতে সেভিয়াকে গোলে হারিয়ে দুর্দান্ত এক জয় তুলে নিয়েছে বার্সেলোনা কিন্তু রেফারির বাঁশি বাজার সাথে সাথেই যেন সবার চোখ আন্দ্রেস ইনিয়েস্তার দিকে কারনটাও অবশ্য বেশ যৌত্তিক!

কারণ এই বার্সেলোনার জার্সিতেই যে ইনিয়েস্তার প্রাপ্তি অনেক। তবে এই জয়, এই ম্যাচ অবশ্যই তার জন্য বিশেষ। তাই এদিন ম্যাচ শেষে ইনিয়েস্তা মাঠ থেকে সতীর্থদের সঙ্গে বেরিয়ে যান ডাগআউটে। সেখান বসেই কাঁদলেন কিছুক্ষণ। এরপর তুলে নিলেন টানা চতুর্থ এবং কোপা দেল রের ৩০তম শিরোপা। পরে মাঠ থেকে বেরিয়ে আবার গিয়ে বসেন ডাগআউটে। আবারও কাঁদলেন। একান্তে সময় কাটালেন কিছুক্ষণ

খেলা শেষ হওয়ার পর এরপর সংবাদ সম্মেলন কক্ষে আসেন ইনিয়েস্তা। ধারণা করা হচ্ছিল হয়তো রবিবার রাতেই বার্সেলোনা ছাড়ার ঘোষণা দেবেন তিনি। কিন্তু এমনটা হলো না। 

ইনিয়েস্তা বলেন, ‘আমি চলতি সপ্তাহেই আমার সিদ্ধান্ত ঘোষণা করব। আমার সিদ্ধান্তও চূড়ান্ত। আজকের ফলে আমরা সবাই খুশি। আমি নিজ থেকে ভালো খেলতে চেয়েছি এবং প্রথম মিনিট থেকেই তা পেরেছি।এসময় তিনি আরও বলেন, ‘ব্যক্তিগতভাবে এবং দলগতভাবে পুরো দলই পারফরম্যান্সে খুশি। এই শিরোপাটা আমরা জিততে চাচ্ছিলাম এবং আশা করছি লিগ শিরোপাও জিততে পারব।

এদিকে ৩৩ বছর বয়সি মিড ফিল্ডার  আরও যোগ করেন, ‘দল আজ দশে দশ পাওয়ার যোগ্য। আজকের জয়ে অনেক আবেগ এবং অনুভূতি জড়িত আছে। আজকের পারফরম্যান্সে আমি খুশি এবং যেকোনো শিরোপার থেকে শিরোপা আমাকে বেশি আনন্দিত করেছে। সবাই রোমার বিপক্ষে ম্যাচ নিয়ে ভাবছে কিন্তু আমি মনে করি আমরা এটার যোগ্য।

এদিকে উল্লেখ্য যে , ইনিয়েস্তা ২০১১ সালের পর প্রথমবারের মতো বার্সেলোনার জার্সিতে কোনো ফাইনালে গোল করলেন। আর এই জয়ের মধ্য দিয়েই যে বার্সেলোনা ছাড়ার সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত করেছেন তিনি সে কথা সবাই জানে!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: