Home » অর্থনীতি » চালের মজুদ স্তগিত হওয়ায় হাসি নেই কৃষকের মুখে
চালের মজুদ স্তগিত হওয়ায় হাসি নেই কৃষকের মুখে
চালের মজুদ স্তগিত হওয়ায় হাসি নেই কৃষকের মুখে

চালের মজুদ স্তগিত হওয়ায় হাসি নেই কৃষকের মুখে

দেশের খাদ্য বিভাগ চাল সংগ্রহ বন্ধ করায়  দুই শতাধিক চালকল কক্সবাজার জেলার কৃষকের কাছ থেকে আর ধান-চাল কিনছেন না। ফলে লক্ষ্যমাত্রার অতিরিক্ত চাল উৎপাদন করেও     ন্যায্যমূল্য থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন কক্সবাজারের আট উপজেলার দুই লাখ কৃষক। আর একারনে সেসকল কৃষকের মুখে হাসি নেই। চলতি মৌসুমে কক্সবাজারের ৭৮ হাজার ৬৫ হেক্টর জমিতে আমন ধান  চাষ করা হয়েছে।  যার লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছিল ২ লাখ ৯ হাজার ৫৭৮ মেট্রিকটন ধান। আর উৎপাদন হয়েছে ২ লাখ ৩৮ হাজার ৬৯৯ মেট্রিকটন ধান। গত মৌসুমের চেয়েও এবারে ১০ হাজার ৭৪০ মেট্রিকটন ধান বেশি উৎপাদন হওয়ার পড়েও বিপাকে পড়েছেন সেখানকার কৃষকেরা জানা যায় জেলা কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের মাধ্যমে।

গত বৃহস্পতিবার বিকেল পর্যন্ত এক কেজি চালও কেনেনি খাদ্য বিভাগ যার তথ্য সেখানকার চাষিদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে । জেলার কৃষকদের উৎপাদিত চাল আতপ হওয়ায় খাদ্য বিভাগ চাল সংগ্রহ বন্ধ রেখেছে। এবার সারা দেশ থেকে ৩ লাখ মেট্রিকটন সেদ্ধ চাল সংগ্রহের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করে খাদ্য বিভাগ এবং যেখানে প্রতি কেজি চালের দাম ধরা হয়েছে ৩৯ টাকা। গত বছরের ৩ ডিসেম্বর থেকে শুরু হওয়া এই চাল সংগ্রহ চলবে আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। তবে আতপ চাল সংগ্রহের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি।

কক্সবাজারের রামু উপজেলার একজন কৃষক মোজাফফর আহমদ (৫৫) বলেন, এবার আমাদের জেলায় আমনের বাম্পার ফলন হয়েছে। কিন্তু কক্সবাজারের চাষিরা ন্যায্যমূল্য থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন চাল সংগ্রহ শুরু না হওয়ায়।যদিও সরকার চালের দামও মোটামুটি ভালো দিয়েছে। টেকনাফের হ্নীলা এলাকার কৃষক ছৈয়দ নুর (৫০) বলেন, এই মৌসুমে তিনি প্রায় ৫০০ মণ চাল উৎপাদন করেছেন। কিন্তু ন্যায্যমূল্যে সে চাল বিক্রি করতে পারছেন না।
কক্সবাজারে উৎপাদিত সব চালই আতপ চাল। তাই জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক এস এম তাহসিনুল হক বলেন, আতপ চাল সংগ্রহের কোনো সিদ্ধান্ত না থাকায় এবার কক্সবাজারে চাল সংগ্রহ হচ্ছে না।
চট্টগ্রাম আঞ্চলিক খাদ্য নিয়ন্ত্রক মো. মাহবুবুর রহমান বলেন, দেশব্যাপী সেদ্ধ চাল সংগ্রহ হচ্ছে। কিন্তু কক্সবাজারসহ চট্টগ্রাম অঞ্চলে সেদ্ধ চাল না থাকায়  আপাতত চাল সংগ্রহ বন্ধ আছে এবং আতপ চাল সংগ্রহ করার জন্য নির্দেশনা চেয়ে ইতিমধ্যে উচ্চপর্যায়ে চিঠি পাঠানো হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: