Home » বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি » জমজমাট স্মার্টফোন ও ট্যাব মেলা
জমজমাট স্মার্টফোন ও ট্যাব মেলা
জমজমাট স্মার্টফোন ও ট্যাব মেলা

জমজমাট স্মার্টফোন ও ট্যাব মেলা

মূল্যছাড় আর উপহারের বিভিন্ন অফারে মেলার প্রথম দিন থেকেই জমে উঠেছে স্মার্টফোন ও ট্যাব মেলা। তিন দিনের এই মেলার আজ দ্বিতীয় দিন।

শুক্রবার সকাল থেকেই দর্শনার্থীদের পদচারনায় মুখর হয়ে ওঠে ঢাকার আগারগাঁওয়ের বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের মেলা প্রাঙ্গন। ছুটিরদিন থাকায় বড়দের পাশাপাশি ছোটদের অংশগ্রহণও ছিল দেখার মতো।

মেলায় স্যামসাং মোবাইলে রয়েছে নির্দিষ্ট কিছু মডেলের স্মার্টফোনে মূলছাড়। এছাড়া গ্যালাক্সি এ৮ প্লাস ফোন মেলার প্রথম দিন থেকেই প্রি অর্ডার করা যাচ্ছে। রয়েছে নানা ধরনের উপহার।

মেলায় শাওমির প্রতিটি ফোনে দেওয়া হচ্ছে শীতের জ্যাকেট উপহার। এছাড়া প্রতিদিন র‌্যাফেল ড্র অনুষ্ঠিত হচ্ছে শাওমির স্টলে। শাওমি বাংলাদেশের প্রধান নির্বাহী দেওয়ান কানন জানান, শাওমির প্যাভিলিয়নে স্মার্টফোন প্রেমীদের উপচে পড়া ভিড় রয়েছে প্রথম দিন থেকেই। প্রথমদিন ফোন বিক্রিতে প্রথম স্থানে ছিল স্যামসাং। দ্বিতীয় স্থানে ছিল শাওমি।

এছাড়া মেলায় অংশ নেওয়া প্রতিটি ব্র্যান্ড মোবাইলফোন কিনলেই নগদ ছাড় ও বিভিন্ন অফার দিচ্ছে।

স্মার্টফোন বা ট্যাবলেট যে ডিভাইসই হোক না কেন সেটি কোনও কারণে নষ্ট হয়ে গেলে কোথায় মেরামত করার সে চিন্তা দূর করতে রিপেয়ার সেবা নিয়ে মেলায় হাজির হয়েছে কুইক ফিক্স। সেবাটির মাধ্যমে ব্যবহারকারীরা স্যামসাং, হুয়াওয়ে, অপ্পো, ভিভো, শাওমি, অ্যাপল ও অন্যান্য ব্র্যান্ডের ডিভাইসের নানাবিধ সমস্যা ‘রিপেয়ার’ করতে পারবেন। মেলা উপলক্ষে কুইক ফিক্সের স্টলে বুকিং দিয়ে প্রথম রিপেয়ারে পাওয়া যাবে ১০ শতাংশ ছাড়। ডিসকাউন্ট।

মেলার প্রথমদিন অনুষ্ঠিত হয় মোবাইল অ্যাপ ও গেম: সম্ভাবনা ও করণীয় বিষয়ক সেমিনার। সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ট্যাপ ট্যাপ অ্যান্টসের নির্মাতা ও রাইজআপ ল্যাবসের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী এরশাদুল হক। সেমিনারটি মডারেটও করেন তিনি।

অনুষ্ঠানে আলোচকরা বলেন, দেশীয় গেম বেশ কম, তাই যদি দেশীয় বাজার লক্ষ্য করে ভালো গেম তৈরি করা যায় তাহলে অনেক বেশি সাড়া পাওয়া যাবে। নতুনদের গেম তৈরি করতে হলে মানের দিকে নজর দিতে হবে। বড় গেম তৈরির জন্য অনেক বিনিয়োগের প্রয়োজন। তাই গেমগুলো কেমন সেগুলো অনেকাংশ নির্ভর করে বিনিয়োগের উপর। তবে নতুনদের বিনিয়োগ কম থাকে, সেক্ষেত্রে ছোট ছোট কিছু গেম তৈরি করে শুরু করা উচিত।

মেলা শেষ হবে শনিবার। শেষ দিনও মেলা সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত চলবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: