Home » অর্থনীতি » ডিমের মৌসুম এখন সস্তির সুসময়!
ডিমের মৌসুম এখন সস্তির সুসময়!
ডিমের মৌসুম এখন সস্তির সুসময়!

ডিমের মৌসুম এখন সস্তির সুসময়!

ডিম একটি পুষ্টিকর খাবার। এমনও লোক আছে যে ডিম ছাড়া তার খাবার চলে না।আর সেই ডিম খেতে যাঁরা পছন্দ করেন, তাঁদের এখন সুসময় বাজারে ফার্মের ডিমের দাম কমে এখন ডজনপ্রতি ৭০ টাকায় নেমেছে একই সঙ্গে কমেছে হাঁস দেশি মুরগির ডিমের দামও

ডিমের দাম কমলেও  খেটে খাওয়া মানুষের নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের দাম বেড়েই চলছে।মিনিকেট চালের দাম কেজিতে থেকে টাকা বেড়েছে গত সপ্তাহে পাইকারি বাজারে চিনির দর বেড়েছিল, তার প্রভাব পড়েছে খুচরা বাজারে অন্যদিকে দেশি পেঁয়াজের দামও কেজিতে টাকা বেড়ে ৬০ টাকায় উঠেছে অন্যান্য পণ্যের দাম স্থিতিশীল আছে

এদিকে দেশের বাজারে দীর্ঘ সময় ধরেই ডিমের দাম কম সপ্তাহে তা আরও কমেছে এর আগে গত ডিসেম্বর মাসে ডিমের দাম পর্যায়ে নেমে এসেছিল বিক্রেতারা বলছেন, দাম এভাবে কমে যাওয়ার কারণ বাড়তি উৎপাদন দেশে এখন ছোটবড় খামারে দৈনিক যে পরিমাণ ডিম উৎপাদিত হয়, যা চাহিদার তুলনায় বেশি বলে দাবি ব্যবসায়ীদের

অপরদিকে ঢাকার কারওয়ান বাজারের খুচরা ব্যবসায়ীরা গতকাল বৃহস্পতিবার প্রতি ডজন ফার্মের লাল ডিম বিক্রি করেন ৭০ টাকা দরে অন্যদিকে দেশি মুরগি হাঁসের ডিম বিক্রি হয় ১২০ টাকা ডজন ছোট বাজার পাড়ামহল্লার খুচরা দোকানে সাধারণত দাম কিছুটা বেশি হয় কারওয়ান বাজারের কিচেন মার্কেটের সামনের ডিম বিক্রেতা আলমগীর হোসেন বলেন, পাইকারি বাজারে এখন ডিমের দাম কম

এছাড়া তেজগাঁওয়ের আড়তে গতকাল প্রতি ১০০টি ফার্মের ডিম ৪৬৫ টাকা দরে বিক্রি হয়, যা গত সপ্তাহে ৪৮৫ টাকার মতো ছিল স্থানীয় আড়ত মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক হানিফ মিয়া বলেন, মাস দেড়েক আগে ১০০টি ডিমের দাম ৫৪০৫৫০ টাকায় উঠেছিল এরপর থেকেই কমছে তিনি বলেন, দাম কমে যাওয়ার বড় কারণ সরবরাহ বেশি এখন বিদেশ থেকে এসেই গ্রামের মানুষেরা মুরগির খামার করছে এতে উৎপাদন অনেক বেশি হচ্ছে তিনি বলেন, কৃত্রিম ডিমের একটা অপপ্রচারও আছে এসব কারণেও বাজার পড়তি

প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের হিসাবে, দেশে ২০১৬১৭ অর্থবছরে হাজার ৪৯৬ কোটি ডিম উৎপাদিত হয় ছয় বছর আগে ২০০৯১০ অর্থবছরে ডিমের উৎপাদন ছিল ৫৭৪ কোটি ভোক্তা অধিকার সংগঠন কনজ্যুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ক্যাব) হিসাবে, ২০০৯ সালে প্রতি হালি ডিমের গড় দাম ছিল ২৮ টাকা ২০১৬ সালে দাম দাঁড়ায় ৩৪ টাকায় ২০১৭ সালে আবার তা কমে ৩২ টাকায় নামে গত সপ্তাহে ঢাকার পাইকারি বাজারে চিনির দর কেজিতে দুই টাকার মতো বেড়েছিল খুচরা পর্যায়ে বৃদ্ধি সেটার প্রভাব বলে দাবি করেছেন ব্যবসায়ীরা

আরো পড়ুন-

দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে বেসরকারি খাত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: