Home » খেলাধুলা » নেইমারের জার্সিটা বদলাতে ৪০০ মিলিয়ন ইউরোর বাজেট রিয়াল মাদ্রিদের
নেইমারের জার্সিটা বদলাতে ৪০০ মিলিয়ন ইউরোর বাজেট রিয়াল মাদ্রিদের
নেইমারের জার্সিটা বদলাতে ৪০০ মিলিয়ন ইউরোর বাজেট রিয়াল মাদ্রিদের

নেইমারের জার্সিটা বদলাতে ৪০০ মিলিয়ন ইউরোর বাজেট রিয়াল মাদ্রিদের

নেইমার বার্সোলোনা ছেড়ে পিএসজিতে যাওয়ার পর জিতেই চলেছে ফরাসি জায়ান্টরা। কিন্তু অপরদিকে ভিন্ন অবস্থানে রিয়াল মাদ্রিদ। ইতিহাসে প্রথমবারের মতো  পরিচিত মাঠে ভিয়ারিয়ালের কাছে রিয়াল মাদ্রিদের পরাজয়। তাও আবার একের পর এক গোল মিসের পাল্লা  দিয়ে। ফলে নেইমারকে কেন্দ্র করে বৃহস্পতিবারের গুঞ্জনটা আরও জোরদার হলো। যেকোনো মূল্যেই নেইমারকে চাই মাদ্রিদের। গোলের রাস্তাটা ভালোই চেনা ব্রাজিলিয়ান এই ফরোয়ার্ডের।

দলবদলের বাজার এমন অভিজ্ঞতা এনে দিয়েছে, যে কোনো গুঞ্জনকেই আর উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। নেইমার বার্সোলোনা ছেড়ে রেকর্ড ট্রান্সপার ফ্রিতে ফরাসি ক্লাব পিএসজিতে নাম লেখান যা অবিশাস্য ছিল। কিন্তু সেটাও করে দেখালেন নেইমার। আর তাই  বর্তমান সংবাদপত্র গুলো খেলোয়ারদের দলবদল নিয়ে কোন ধরনের উক্তির সাহস পাচ্ছেনা। আর তাই দুদিন আগের নেইমারের জন্য ৪০০ মিলিয়ন   গুঞ্জনটা এবার স্পোর্টস ইলাস্ট্রেটেডসহ অনেক পত্রিকা প্রকাশ করল। যেখানে  নেইমারের জন্য ৪০০ মিলিয়ন ইউরো গুছিয়ে রাখছেন  রিয়াল মাদ্রিদের ফ্লোরেন্তিনো পেরেজ।

গত বছরের আগস্টেই ২২২ মিলিয়ন ইউরো দিয়ে বার্সেলোনা থেকে নেইমারকে  উড়িয়ে  এনেছে  ফরাসি ক্লাব পিএসজি। দলবদলের আগের রেকর্ডের চেয়ে দ্বিগুণ অঙ্কটা এখনো অবিশ্বাস্য ঠেকে। ২২২ মিলিয়ন ইউরো! বাংলাদেশি মুদ্রায় অঙ্কটা  যেখানে ২ হাজার ১০৬ কোটি টাকা!  আর এ টাকায় নাকি ১৫৩টি ক্লোন নেইমারের জন্ম দেওয়া সম্ভব। তবে মানব ক্লোনিং এখনো বৈধতা পায়নি। আর ক্লোন নেইমার বড় হয়ে কবে এমন ফর্মে আসবেন, সে অপেক্ষাতেই বা কত দিন বসে থাকবে দলগুলো!

তাই রিয়াল মাদ্রিদ সভাপতির অত অপেক্ষা  আর সইছে না। এর আগে দুবার তাঁর নাকের ডগা দিয়ে নেইমার ফসকে গেছে। দানে দানে তিন হতে দিতে চান না পেরেজ। আর এ মৌসুমে রিয়ালের আক্রমণভাগের এমনই ভগ্নদশা যে, সামনের দলবদলে বড়সড় এক ধাক্কা দেওয়া জরুরি হয়ে দাঁড়িয়েছে পেরেজের জন্য। কিন্তু পিএসজিও তাঁকে ছাড়তে চাইবে কেন? এ কারণেই ৪০০ মিলিয়ন ইউরোর অফার। ডন বালোন দাবি তুলেছে, নেইমারও নাকি রিয়ালে আসতে চাচ্ছেন কারণ গুঞ্জন তো একবার উঠেছে। তবে দুটো শর্ত মানতে হবে রিয়ালকে। প্রথমত ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো ও গ্যারেথ বেল দুজনকেই বিক্রি করতে হবে। দ্বিতীয়ত কোচ হিসেবে বিশ্বমানের কাউকে চাই তাঁর। জিনেদিন জিদানকে তাঁর নাকি ঠিক বিশ্বমানের মনে হচ্ছে না।

ভিন্ন এক সংবাদে জানা গেছে যে পিএসজিকে নাকি পেরেজ আরও বড় মাপের টোপ দিচ্ছেন।
পেরেজের যেমন অনেক দিনের শখ নেইমারকে কেনা, ঠিক তেমনি রোনালদোকে নিয়ে গত ছয়-সাত বছর ধরেই স্বপ্ন দেখছে পিএসজি। প্যারিসের দলটিকে যদি নেইমারকে দিতে হয় তাহলে     রিয়াল মাদ্রিদকে রাজি করতে ‘রোনালদো+অর্থ’ দিতে চান পেরেজ।
অবশ্য প্যারিসের সংবাদমাধ্যমকে সূত্র মানলে রিয়ালকে বড় চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিচ্ছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। দলে সাম্বার সুর টানতে নাকি ৫০০ মিলিয়ন ইউরোও দিতে রাজি ইউনাইটেড। ৫০০ মিলিয়ন ইউরো! ৫ হাজার কোটি টাকা!!

বিশ্ব ক্লাব ফুটবল দলগুলোর আর তাই দুদিন আগের গুঞ্জনটা এবার স্পোর্টস ইলাস্ট্রেটেডসহ আরও কিছু পত্রিকা খবর হিসেবেই জানিয়ে দিল সবাইকে। নেইমারের জন্য ৪০০ মিলিয়ন ইউরো গুছিয়ে রাখছেন ফ্লোরেন্তিনো পেরেজ।

কদিন হলো? এই তো আগস্টেই ২২২ মিলিয়ন ইউরো দিয়ে বার্সেলোনা থেকে নেইমারকে ছিনিয়ে এনেছে পিএসজি। দলবদলের আগের রেকর্ডের চেয়ে দ্বিগুণ অঙ্কটা এখনো অবিশ্বাস্য ঠেকে। ২২২ মিলিয়ন ইউরো! বাংলাদেশি মুদ্রায় অঙ্কটা ২ হাজার ১০৬ কোটি টাকা! এ টাকায় নাকি ১৫৩টি ক্লোন নেইমারের জন্ম দেওয়া সম্ভব। তবে মানব ক্লোনিং এখনো বৈধতা পায়নি। আর ক্লোন নেইমার বড় হয়ে কবে এমন ফর্মে আসবেন, সে অপেক্ষাতেই বা কত দিন বসে থাকবে দলগুলো!
রিয়াল মাদ্রিদ সভাপতির অত অপেক্ষা করতে বয়েই গেছে। দুবার তাঁর নাকের ডগা দিয়ে নেইমার ফসকে গেছে। দানে দানে তিন হতে দিতে চান না পেরেজ। আর এ মৌসুমে রিয়ালের আক্রমণভাগের এমনই ভগ্নদশা, সামনের দলবদলে বড়সড় এক ধাক্কা দেওয়া জরুরি হয়ে দাঁড়িয়েছে পেরেজের জন্য। কিন্তু পিএসজিও তাঁকে ছাড়তে চাইবে কেন? এ কারণেই ৪০০ মিলিয়ন ইউরোর এমন লোভনীয় অফার।
তবে গুঞ্জন যখন উঠছে, তখন শুধু অর্থেই বা থামা কেন। তাই ডন বালোন দাবি তুলেছে, নেইমারও রিয়ালে আসতে চাচ্ছেন। তবে দুটো শর্ত মানতে হবে রিয়ালকে। প্রথমত ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো ও গ্যারেথ বেল দুজনকেই বিক্রি করতে হবে। দ্বিতীয়ত কোচ হিসেবে বিশ্বমানের কাউকে চাই তাঁর। জিনেদিন জিদানকে তাঁর নাকি ঠিক বিশ্বমানের মনে হচ্ছে না। এদিকে ক্যাদেনা সারের দাবি, পিএসজিকে নাকি পেরেজ আরও বড় টোপ দিচ্ছেন।
পেরেজের যেমন অনেক দিনের শখ নেইমারকে কেনা, ঠিক তেমনি রোনালদোকে নিয়ে গত ছয়-সাত বছর ধরেই স্বপ্ন দেখছে পিএসজি। তাই প্যারিসের দলটিকে নেইমার ডিলে রাজি করতে ‘রোনালদো+অর্থ’ দিতে চান পেরেজ।
অবশ্য প্যারিসের সংবাদমাধ্যমকে সূত্র মানলে রিয়ালকে বড় চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিচ্ছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। দলে সাম্বার সুর টানতে নাকি ৫০০ মিলিয়ন ইউরোও দিতে রাজি ইউনাইটেড। ৫০০ মিলিয়ন ইউরো! ৫ হাজার কোটি টাকা!!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: