Home » স্বাস্থ্য » সত্যিই কি স্বামী-স্ত্রীর রক্তের গ্রুপ এক হলে সমস্যা?
সত্যিই কি স্বামী-স্ত্রীর রক্তের গ্রুপ এক হলে সমস্যা
সত্যিই কি স্বামী-স্ত্রীর রক্তের গ্রুপ এক হলে সমস্যা

সত্যিই কি স্বামী-স্ত্রীর রক্তের গ্রুপ এক হলে সমস্যা?

অনেকেরই এ বিষয়টি নিয়ে মনে প্রশ্ন থাকে, তা হলো স্বামী-স্ত্রীর রক্তের গ্রুপ মিলে গেলে কি হবে? কোন সমস্যা হবে নাতো! এত চিন্তার কারন একটিই আর তা হলো প্রচলিত একটি ধারনা আছে যে, স্বামী-স্ত্রীর রক্তের গ্রুপ একই রকম হলে সন্তান বিকলাঙ্গ বা মানসিক ভারসম্যহীন হতে পারে। আসুন জেনে নিই কতটা সত্য প্রচলিত এ ধারনাটি।

গবেষকদের মতে, পুরো পৃথিবীতে ‘ও’ গ্রুপের রক্ত আছে ৩৬ ভাগ, ‘এ’ গ্রুপের রক্ত ২৮ ভাগ এবং ‘বি’ গ্রুপের রক্ত ২০ ভাগ। এর মধ্যে এশিয়া মহাদেশে শুধু ‘বি’ গ্রুপের রক্তের মানুষ প্রায় ৪৬ শতাংশ! তার মধ্যে ৫ শতাংশ আছে নেগেটিভ ব্লাড। অন্যদিকে ইউরোপ-আমেরিকাতে নেগেটিভ রক্তের গ্রুপ প্রায় ১৫ শতাংশ। তাহলে স্বামী-স্ত্রীর রক্তের গ্রুপ একরকম হতেই পারে। তার অর্থ এটা নয় যে তাদের বাচ্চার সমস্যা হবে।

উদাহরন স্বরুপ বলা যায়, এশিয়ায় বেশির ভাগ মানুষের রক্তই যখন ‘বি’ গ্রুপের, স্বামী-স্ত্রীর রক্তের গ্রুপ মিলে যেতে পারে এটাই স্বাভাবিক। এরকম হলে কোন সমস্যা নেই। শুধমাত্র স্বামীর রক্ত পজিটিভ এবং স্ত্রীর রক্ত নেগেটিভ যদি হয় সে ক্ষেত্রে সমস্যা হতে পারে। এ সমস্যা টি কে ‘আরএইচ আইসোইমিউনাইজেসন’ (Rh Immunization) বলা হয় এবং এর যথাযত চিকিৎসা বা প্রতিষেধক ও রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: