Home » জাতীয় » হবিগঞ্জ জেলায় পহেলা বৈষাখে নদী রক্ষায় পথযাত্রা ও আন্দোলন
হবিগঞ্জ জেলায় পহেলা বৈষাখে নদী রক্ষায় পথযাত্রা ও আন্দোলন
হবিগঞ্জ জেলায় পহেলা বৈষাখে নদী রক্ষায় পথযাত্রা ও আন্দোলন

হবিগঞ্জ জেলায় পহেলা বৈষাখে নদী রক্ষায় পথযাত্রা ও আন্দোলন

নদীর দেশ বাংলাদেশ। সমগ্র বাংলা জুড়ে জালের মত জড়িয়ে ছিল অসংখ্য নদী। কিন্তু কালে কালে আধুনিকতার ছোয়ায় হারিয়ে যাচ্ছে এই সব ছোট-বড় সব ধরনের নদী।

এক সময় হবিগঞ্জ জেলার উপর দিয়ে প্রবাহিত হত এমনও ছোট-বড় অনেক নদী। কিন্তু অতি আধুনিকতার ভাবে নিমিশেই হারিয়ে যাচ্ছে এই সব নদী।

আর এই সব নদী ধ্বংসরোধে এবারই প্রথম তরুনদের উদ্ব্যেগে বাংলা সনের প্রথম দিনে অর্থাৎ পহেলা বৈশাখ উদযাপনে দিনের প্রথম মাহ্নে হবিগঞ্জ জেলার শিরিশতলায় মানববন্ধন ও পথসভার আয়োজন করেছে।

“নববর্ষে বাজে নতুন দিনের গান, নদী বয়ে যাক অবিরত, বাংলাদেশের প্রাণ” শ্লোগানকে সামনে রেখে বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) হবিগঞ্জ ও খোয়াই রিভার ওয়াটারকিপার আয়োজিত ‘হবিগঞ্জের ভরাট ও দখল হয়ে যাওয়া নদী খনন ও পুনরুদ্ধারের দাবিতে মানববন্ধন করা হয়।

উক্ত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বাপা সংস্থার হবিগঞ্জের সভাপতি অধ্যাপক মো. ইকরামুল ওয়াদুদ। তবে অনুষ্ঠানে মূল বক্তব্য রাখেন- খোয়াই রিভার ওয়াটারকিপার ও বাপা হবিগঞ্জের সাধারণ সম্পাদক তোফাজ্জল সোহেল।

এ সময় উপস্থিত থেকে মূল্যবান বক্তব্য রাখেন- বিশিষ্ট গবেষক অধ্যাপক জাহান আরা খাতুন, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগী অধ্যাপক জহিরুল হক শাকিলসহ বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনের সংগঠক ও কর্মীবৃন্দ।

খোয়াই রিভার ওয়াটারকিপার তোফাজ্জল সোহেল তার মূল বক্তব্যে বলেন, দখল-দূষণে সব নদীই আজ বিপর্যস্ত, সৌন্দর্যহীন, অর্ধমৃত বা প্রায় মৃত হয়ে পড়েছে। নদীর উপর ক্রমাগত অসংযত আচরণ ও অত্যাচারের মহোৎসবে কিছু মানুষ লাভবান হলেও স্থায়ীভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হতে যাচ্ছে দেশের বৃহত্তর জনগোষ্ঠী। তাই পরিবেশ-প্রতিবেশ এর প্রতি লক্ষ্য রেখে ভরাট ও দখল-দূষণ হয়ে যাওয়া সব নদী পুনরুদ্ধার করে খনন, সচল এবং স্বাভাবিক গতিতে প্রবাহিত করতে হবে। আর তা নাহলে নদীমাতৃক বাংলাদেশের নদী বিপর্যয় অবধারিতভাবেই সার্বিক পরিবেশ-প্রতিবেশ, স্বাস্থ্য ও অর্থনৈতিক বিপর্যয়ের সূত্রপাত করবে।

গত বছরের ভয়াবহ ব্যানায় উল্লেখিত হবিগঞ্জ জেলায় একসময় প্রবাহিত হওয়া প্রায় অর্ধশতাধিক নদীর নাম দেখে কর্মস‍ূচির প্রতি আগ্রহ প্রকাশ করে এক যোগে অনুষ্ঠানে যোগ দেন সকলে। পাশাপাশি সকলে মিলে এই উদ্যোগটি যেভাবে সফল করা যায় সেই বিষয়ে নজর রাখার দৃঢ় প্রতিজ্ঞা জ্ঞাপন করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: