Home » বিশ্ব » ‘ইউএস-বাংলা’ বিমান বিধ্বস্তে নিহতদের প্রত্যেকের পরিবার পাবে ৫০ হাজার ডলার
‘ইউএস-বাংলা’ বিমান বিধ্বস্তে নিহতদের প্রত্যেকের পরিবার পাবে ৫০ হাজার ডলার
‘ইউএস-বাংলা’ বিমান বিধ্বস্তে নিহতদের প্রত্যেকের পরিবার পাবে ৫০ হাজার ডলার

‘ইউএস-বাংলা’ বিমান বিধ্বস্তে নিহতদের প্রত্যেকের পরিবার পাবে ৫০ হাজার ডলার

নেপালে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের উড়োজাহাজ বিধ্বস্ত হয়ে নিহতদের প্রত্যেকের পরিবারকে কমপক্ষে ৫০ হাজার মার্কিন ডলার দেবেন বলে জানিয়েছেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী এ কে এম শাহজাহান কামাল।

ওয়ারসো কনভেনশবেসামরিক অনুযায়ী ইন্সুরেন্স কোম্পানি এই ক্ষতিপূরণ দেবেন। আজ  বুধবার সচিবালয়ের এক সংবাদ সম্মেলনে মন্ত্রী এ কে এম শাহজালাল কামাল এ কথা জানান। তবে এই টাকা প্রদান করার জন্য কিছু আইনি কার্যক্রম সম্পন্ন করতে হবে।

এই সংবাদ সম্মেলনে ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্সের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ইমরান আসিফ জানান আরও  জানান, ‘এ বিমান দুর্ঘটনায় আহত-নিহত সবার নাম-ঠিকানা তাদের কাছে আছে। ইন্সুরেন্স এই টাকা প্রদানের জন্য প্রত্যেকের ভিসা এবং বিমান টিকিট ব্যবহার করবেন। এছাড়া বিজ্ঞাপনে এই টাকা প্রদানের বিস্তারিতও দেওয়া হয়েছে। তবে মৃত ব্যক্তিদের পরিবারের সাথে বিমান কর্তৃপক্ষ নিয়মিত যোগাযোগ রাখছেন।’

এ ব্যাপারে তিনি আরও জানান,‘বিধ্বস্ত হওয়া ইউএস-বাংলা উড়োজাহাজের ইন্সুরেন্সের লোকাল এজেন্ট সাধারণ বিমা ও সেনা কল্যাণ ইন্সুরেন্স কোম্পানি পুনঃবীমা অংশের অর্ধেক সাধারণ বীমা করপোরশেন ও বাকী অংশ পুনঃবীমা ব্রোকার কে এম দাস্তুর অ্যান্ড কোংয়ের মাধ্যমে বিদেশে পুনঃবীমা করেছে। সাধারণ বীমা করপোরেশনও কে এম দাস্তুর অ্যান্ড কোংয়ের মাধ্যমে বিদেশে পুনঃবীমা করেছে। ইউএস-বাংলার ধ্বংস হওয়া ওই বিমানটি বৈদেশিক নেতৃস্থানীয় পুনঃবীমাকারী লন্ডনভিত্তিক এক্সএল ক্যাটলিন ও অন্যান্য পুনঃবীমাকারীর সঙ্গে পুনঃবীমা করা আছে।’

এ ঘটনায় আসিফ আরও বলেন, ‘আহত-নিহতদের পরিবার ক্ষতিপূরণ না পাওয়া পর্যন্ত ইউএস-বাংলা এয়ারক্রাফটের কোনো প্রকার ক্ষতিপূরণের অর্থ নেবে না। আহত-নিহতদের ক্ষতিপূরণ দেওয়াই এখন আমাদের প্রধান বিবেচ্য। নিহত প্রত্যেক পরিবার ৫০ হাজার ডলার যা বাংলাদেশি প্রায় ৪০ লাখ টাকা কম পাবেন।আর আহতদের চিকিৎসা ব্যয়ের ওপর ভিত্তি করে ক্ষতিপূরণের টাকা দেওয়া হবে।’

ওয়ারসো কনভেনশনে বাংলাদেশ স্বাক্ষর করে তা অনুসমর্থন করলেও এখনও মন্ট্রিল কনভেনশন অনুসমর্থন করেনি। মন্ত্রী জানান, আগামী সোমবারের মন্ত্রিসভা বৈঠকে আলোচনার পর মন্ট্রিল কনভেনশনে অনুসমর্থন নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: