Home » ফরিদপুর কণ্ঠ » ফরিদপুরে নিপাহ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েএক স্কুল ছাত্রীর মৃত্যু!
ফরিদপুরে নিপাহ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েএক স্কুলছাত্রীর মৃত্যু!
ফরিদপুরে নিপাহ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েএক স্কুলছাত্রীর মৃত্যু!

ফরিদপুরে নিপাহ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েএক স্কুল ছাত্রীর মৃত্যু!

মেয়েটি ক্লাস ছিক্সে পড়ে। কিন্তু হঠাৎ করেই প্রায় দুই সপ্তাহের মধ্যে অসুস্থ্য হয়ে এই পৃথিবী ছেড়ে বিদায় নিতে হল সেই মেয়েটিকে। এদিকে খোজ নিয়ে জানা গেছে মেয়েটির বাসা ফরিদপুরের সদরপুর উপজেলায়

হঠাৎ করে মেয়েটির মৃত্যুর কারন কী এই সম্পর্কে খোজ নেওয়া হলে জানা যায়, খেজুরের রস পান করে নিপাহ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গতকাল মঙ্গলবার রাবেয়া নামের সেই স্কুলছাত্রীর মৃত্যু হয়েছে তবে মেয়েটির মৃত্যু খবর পেয়ে ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজের চিকিৎসকদের একটি দল সেখানে পৌঁছার আগেই দাফন সম্পন্ন হওয়ায় নমুনা সংগ্রহ করা সম্ভব হয়নি

এদিকে মারা যাওয়া শিশুটি উপজেলার চৌদ্দরশি গ্রামের দিনমজুর রব্বানী শেখের মেয়ে এবং উপজেলার বেগম কাজী জেবুন্নেছা সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) পূরবী গোলদার, উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মো. জালালউদ্দিন স্কুলের প্রধান শিক্ষক জাহানারা বেগম রাবেয়ার বাড়িতে গিয়ে শোকার্ত স্বজনদের সান্ত্বনা দেন

অপরদিকে চিকিৎসক পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, রাবেয়া ১০১২ দিন আগে পাশের ভাঙ্গা উপজেলায় তার খালার বাড়িতে বেড়াতে গিয়ে খেজুরের রস পান করে। এর পর থেকে সে প্রায় এক সপ্তাহ ধরে প্রচণ্ড মাথাব্যথাসহ জ্বরে ভুগছিল। জ্বরের ওষুধ খাওয়ালেও লাভ হয়নি। সোমবার রাত থেকে শিশুটির মাথাব্যথা বেড়ে যায় এবং বমি করে অচেতন হয়ে পড়ে। গতকাল সকাল ৯টার দিকে তাকে সদরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন

মেডিক্যাল অফিসার ফরিদ আহমদ বলেন, ‘রোগের বিবরণ লক্ষণ দেখে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে যে রাবেয়া নিপাহ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে। তবে নমুনা পরীক্ষা না করে ব্যাপারে নিশ্চিত করে কিছু বলা যাবে না।

উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মো. শফিক উল্লাহ জানান, শিশুটি নিপাহ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিল কি না তা নিশ্চিত করতে নমুনা সংগ্রহের জন্য ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজের নিপাহ সার্ভিল্যান্স টিম গতকাল দুপুরে চৌদ্দরশি গ্রামের উদ্দেশে রওনা হয়। কিন্তু তারা পৌঁছার আগেই লাশ দাফন হয়ে যাওয়ায় নমুনা সংগ্রহ করা যায়নি। তিনি আরো জানান, রাবেয়ার সঙ্গে আরো কয়েকজন খেজুরের রস পান করেছিল। তারা কেউ জ্বরে আক্রান্ত হয়নি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: